সেরা কিছু নিশ্চয় আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী আয়াত ও উক্তি

    নিশ্চয় আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী

    আমরা মানুষ, আল্লাহ তাআলা আমাদের সৃষ্টি করেছেন তার সৃষ্টি সেরা জীব হিসেবে । আমরা সকলেই জানি যে 18000 মাখলুকাতের মধ্যে মানুষ সর্বশ্রেষ্ঠ । দুনিয়াতে আল্লাহতালা অসংখ্য প্রাণী সৃষ্টি করেছেন । আর এত সকল প্রাণীকুলের মধ্যে মানুষের বিবেক দেয়া হয়েছে । আল্লাহতালা মানুষকে বিবেক বুদ্ধি দিয়ে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন আপনি চাইলেই আল্লাহতালা ইবাদত করতে পারেন আবার না চাইলেই না করতে পারেন । একদিন আপনাকে মরতে হবে এবং কিয়ামতের ময়দানে আল্লাহ তায়ালার কাছে সকল কিছুর জবাবদিহিতা করতে হবে । আর এই সকল কিছুই আল্লাহতালা একটি পরিকল্পনা । আর এটা আপনাকে মানতেই হবে আল্লাহতালা সর্বশ্রেষ্ঠ এবং আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী । নিশ্চয় আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী এ সম্পর্কে কোরআনে অনেক আয়াত রয়েছে এবং বিভিন্ন মনীষীদের অনেক উক্তি রয়েছে । 
    নিশ্চয় আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী আয়াত

    নিশ্চয় আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী আয়াত

    আল্লাহর সর্বোত্তম পরিকল্পনাকারী হওয়ার ধারণাটি ইসলামের পবিত্র গ্রন্থ কুরআন থেকে নেওয়া হয়েছে। অসংখ্য আয়াতে, কুরআন এই ধারণার উপর জোর দিয়েছে যে আল্লাহ হচ্ছেন চূড়ান্ত পরিকল্পনাকারী এবং তাঁর প্রজ্ঞা পরিমাপের বাইরে। 

    আল-আনফালে (8:30)

    এরকম একটি আয়াত সূরা আল-আনফালে (8:30) পাওয়া যায়, যেখানে বলা হয়েছে, "তারা পরিকল্পনা করে এবং আল্লাহ পরিকল্পনা করেন। এবং আল্লাহই সর্বোত্তম পরিকল্পনাকারী।" এই আয়াতটি একটি অনুস্মারক হিসাবে কাজ করে যে মানুষের পরিকল্পনা ব্যর্থ হতে পারে, কিন্তু আল্লাহর পরিকল্পনা অমূলক এবং সর্বব্যাপী।

    সূরা বাকারা (২:২৮৬)

    সূরা আল-বাকারায় (2:286), বিশ্বাসীদেরকে আল্লাহর পরিবেষ্টিত জ্ঞান এবং করুণার কথা স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে: "আল্লাহ কোন আত্মাকে তার বহন করার ক্ষমতার বাইরে বোঝা দেন না..." এই আয়াতটি ব্যক্তিদের আশ্বস্ত করে যে তারা যে চ্যালেঞ্জগুলির মুখোমুখি হয় তা একটি অংশ। তাদের ক্ষমতা অনুযায়ী ঐশ্বরিক পরিকল্পনা. এটি ধৈর্য এবং আল্লাহর প্রজ্ঞার উপর আস্থা রাখতে উত্সাহিত করে, জেনে যে তাঁর পরিকল্পনাটি করুণাময় এবং মানুষের ক্ষমতার বিবেচনায়।

    সূরা আশ-শুরা (42:30)

    সূরা আশ-শুরা (42:30) সমস্ত ঘটনার ঐশ্বরিক উত্সের উপর জোর দেয়, অস্তিত্বের প্রতিটি দিকের উপর আল্লাহর জ্ঞান এবং নিয়ন্ত্রণের উপর জোর দেয়: "এবং যা কিছু আপনাকে বিপর্যয়ের সম্মুখীন করে - তা আপনার নিজের হাতের উপার্জনের জন্য, কিন্তু তিনি অনেক কিছু ক্ষমা করেন। " এই আয়াতটি বিশ্বাসীদেরকে তাদের ক্রিয়াকলাপের উপর চিন্তা করার জন্য আমন্ত্রণ জানায়, এই স্বীকৃতি দিয়ে যে ফলাফলগুলি, ইতিবাচক বা চ্যালেঞ্জিং হোক না কেন, আল্লাহর ব্যাপক পরিকল্পনার অংশ।

    সূরা আল ইমরান (৩:৫৪)

    সূরা আল-ইমরান (3:54) পার্থিব পরিকল্পনার প্রেক্ষাপটে আল্লাহর সেরা পরিকল্পনাকারীর ধারণাটিকে সুন্দরভাবে তুলে ধরে: "এবং কাফেররা পরিকল্পনা করেছিল, কিন্তু আল্লাহ পরিকল্পনা করেছিলেন। এবং আল্লাহই সর্বোত্তম পরিকল্পনাকারী।" এই আয়াতটি ব্যাখ্যা করে যে কিভাবে ঐশ্বরিক পরিকল্পনা সত্য ও ন্যায়ের বিরোধিতাকারীদের পরিকল্পনাকে অতিক্রম করতে পারে, আল্লাহর অতুলনীয় প্রজ্ঞা প্রদর্শন করে।

    আল্লাহ উত্তম পরিকল্পনাকারী উক্তি 

    বাস্তবিক জীবনে আমরা অনেক পাপী এবং আমরা আল্লাহর কাছে ধরানোর দেয়ার জন্য বা আল্লাহর কাছে ক্ষমা চাওয়ার জন্য বিভিন্ন রকম ফন্দি এটা থাকি । কিন্তু আপনি একবার চিন্তা করে দেখুন আপনাকে যিনি সৃষ্টি করেছেন তাহলে আপনার মাথায় যদি এতটুকু বুদ্ধি থেকে থাকে আপনাকে তিনি সৃষ্টি করেছেন তার মাথায় কত প্লান কতই না পরিকল্পনা রয়েছে। এই দুনিয়াতে আমরা যাই করে তাকাই না কেন শেষমেশ আমাদেরকে তার কাছে ধরা দিতেই হবে । 

    আল্লাহ সর্বোত্তম পরিকল্পনাকারী

    আমি সর্বশেষ আপনাদের একটি সাজেশন দিতে চাই সেটা হল আমরা অনেকেই বিপদে পড়ি এবং বিভিন্ন রকম ভেবে থাকি আল্লাহ হয়তো বা আমাদের দিকে তাকে দেখছেনা বা আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে এটা কেন দিচ্ছেনা । একটি কথা আমাদের সবাইকে মাথায় রাখতে হবে আল্লাহ তা'আলা যা জানেন আমরা তা জানি না । আমার জন্য যা মঙ্গলজনক আল্লাহ তা'আলা তা জানেন কিন্তু আমি হয়তোবা সেটা জানি না এজন্য হয়তোবা আমি যেটা চাই বা পেতে চাই সেটা আল্লাহ তাআলা দিচ্ছেনা কিংবা এর উপাস্বরূপ কিয়ামতের মাঠে আপনার জন্য আরো উত্তম কিছু অপেক্ষা করছে । অথবা এমন হতে পারে আপনার যাওয়া জিনিসটা পাওয়ার সময় এখনো হয়নি ঠিক যখন উত্তম সময় আসবে আল্লাহ তা'আলা আপনাকে সে সময়কে দান করবেন । 
    Next Post Previous Post